কার্নিভাল গ্লোরী : আরোহণ

ডালাস থেকে এক ঘন্টা পঁচিশ মিনিটের বিমান যাত্রা শেষে নিউ ওরলিয়ন্স পৌঁছানোর পর এয়ারপোর্টেই কিছু কিছু প্রাতরাশের পর খোঁজ নিয়ে জানা গেল কার্নিভাল গ্লোরী-র গাড়ী পার্কিং লটে এসে গিয়েছে আমাদের জাহাজে পৌঁছে দেওয়ার জন্য।পোর্টে পৌঁছানোর পর ভীড় দেখে চক্ষু চড়কগাছ। যেন কলকাতার সমস্ত পূজা মন্ডপের সম্মিলিত ভীড় এক জায়গায় জড়ো হয়েছে।না এতটা বলা বাড়াবাড়ি, তবে উপমা হিসেবে বলা যেতেই পারে।

এখানে বলে রাখা ভালো, পুত্র শ্রী মান শুভজিৎ এর সুচারু ব্যবস্থাপনায় অর্থাৎ আগাম ' অন লাইন -চেকড্ ইন ' প্রভৃতির কারণে সহজেই পৌঁছে গেলাম অপেক্ষার জায়গায়। প্রবেশাধিকার মিললো সমস্ত প্রয়োজনীয় পরিচয়পত্র পরীক্ষা এবং প্রত্যেক যাত্রীর ছবি তোলার পর। বিশালায়তন ঐ হল ঘরে আমাদের অপেক্ষা করতে হবে জাহাজে আরোহণ এর নির্দেশ পেতে। স্বীকার করতে দ্বিধা নেই, অত্যন্ত নিয়মানুবর্তিতা সহকারে টিকিটের গ্ৰুপ অনুসারে জাহাজে আরোহণের জন্য যাত্রীদের আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছিল।

আমাদের গ্ৰুপ ছিল ডি-৩ এবং ডি-৪। একসঙ্গে ডাক পাওয়ার পর হাঁটা শুরু করলাম জাহাজে আরোহণের উদ্দেশ্যে। প্রায় আধ মাইল হাঁটার পর পৌঁছে গেলাম জাহাজের তৃতীয় ডেকে। একেই বলে বোধহয় "বাঁশ বনে ডোম কানা"! নির্দেশ ছিল ন-তলার ডেকে যাত্রীদের অপেক্ষা করতে হবে নির্ধারিত ঘর পাওয়ার অপেক্ষায়। আমাদের বলা হলো, 'বাপু হে বেলা দেড়টায় তোমাদের ঘর দেওয়া হবে, ততক্ষন খাওয়া-দাওয়া করো, পুলে জলকেলি করো, যা মনে লয় করো'!

দুনিয়ার হরেক রকম খাবার দাবার হাজির, নেই কেবল এ অভাগার পছন্দের " ভাত ভাল মাছ "! কেমন করে জানি নে পুত্র তার বাপের জন্যে কোথাও না কোথাও থেকে জোগাড় করে আনলো এক জাতের পোলাও, ভাল ফ্রাই আর চিংড়ি ভাজা! সোনা মুখ করে তাই দিয়ে মহাপ্রাণীর তুষ্টি সাধন করা গেল। বৌ, পুত্র পুত্র বধু,, দুই নাতনী মহানন্দে তাদের পছন্দসই খাবারের সদব্যবহার করলো। ইতমধ্যে ঘড়ির কাঁটা দেড়টায় পৌঁছেছে। অতএব মন চলো সাত দিনের ঘরের ঠিকানায়। ঘরের আর কি পরিচয় দেবো! স্বল্প পরিসরে যাবতীয় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা আছে, সঙ্গে উপরি পাওনা হিসেবে একটা আস্ত ব্যালকনি! এই ব্যালকনিতে দাঁড়িয়ে বা ডেক চেয়ারে বসে সমুদ্রকে যেন পাওয়া যাবে হাতের, চোখের মুঠোয়!

আমার দেবিজীর তোলা একখান ছবি-ই না হয় দেওয়া যাক সুজন বন্ধুদের চক্ষু সার্থক করার নিমিত্তে!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *